নতুন বাংলাদেশ

নতুন দৃষ্টিতে বাংলাদেশ

প্রথম পাতা > নির্বাচিত প্রবন্ধ > জঙ্গিমাতা কে? Who is the Mother of Terrorism?

জঙ্গিমাতা কে? Who is the Mother of Terrorism?

30 January 2020, Tanzir Ahmed Khan PrintShare on Facebook

গত বছর ফাঁসিতে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়া হরকাতুল জিহাদ ইসলামী নেতা মুফতি মোহাম্মদ আব্দুল হান্নানের বাড়ি ছিল গোপালগঞ্জ জেলায়। ছোট ভাই মুন্সি আনিসুল ইসলাম ছিল গোপালগঞ্জের ছাত্রলীগ নেতা।

১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসলে গোপালগঞ্জের বিসিক শিল্পনগরীতে মুফতি হান্নানকে একটা প্লট দেয়া হয়। সরকারের সহায়তায় মুফতি হান্নান এখানে ’বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা’ গড়ে তুলতে শেখ হাসিনার ছায়াতলে গড়ে তোলে ’সোনার বাংলা কেমিক্যাল ফ্যাক্টরি’।

সেই ফ্যাক্টরিতে মুফতি হান্নান সাবানের বদলে বোমা বানানো শুরু করে। সেই বোমার উপকরণ আসতো ভারত থেকে। সাপ্লাই করতো আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক শেখ আব্দুল্লাহ। উল্লেখ্য এই শেখ আব্দুল্লাহ তখন ছিল গোপালগঞ্জ-৩ আসনে শেখ হাসিনার প্রতিনিধি।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমাদের কাছে বাংলাদেশে জঙ্গিবাদের উপস্থিতি আছে প্রমাণ করতে শেখ আব্দুল্লাহ মুফতি হান্নানকে দিয়ে বিভিন্ন জায়গায় বোমাবাজি করিয়ে ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত ৮৬জন মানুষ হত্যা করে।

সেই আমলে জেলায় জেলায় মুফতি হান্নানের বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটলেও শুধু একবারই মুফতি হান্নানের বোমা বিস্ফোরিত হয়নি। কবে জানেন? ২০০০ সালে শেখ হাসিনা যেবার কোটালিপাড়ায় সভা করতে যায়, তার ঠিক আগের দিন সেই বোমা ধরা পড়ে। বোমা ধরা পড়লেও মুফতি হান্নান ধরা পড়লো না। তাঁকে শেখ আব্দুল্লাহ বহাল তবিয়তেই রাখলো।

২০০৩ সালে বিএনপি সরকারের আমলে মুফতি হান্নানের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয় এবং ২০০৫ সালে বিএনপি সরকার মুফতি হান্নানকে গ্রেপ্তার করে।

আওয়ামী লীগের আন্দোলনের ফসল মঈন উদ্দীনের সরকারের সময় ২০০৭ সালে মুফতি হান্নান তাঁর পুরো কুকর্মে শেখ আব্দুল্লাহর সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করে। সে সময় যৌথ বাহিনী এই শেখ আব্দুল্লাহর বাসায় অভিযানও চালায়।

২০০৬ সালে গ্রেফতারকৃত জেএমবি নেতা আউয়াল এবং সানি ও ২০০৭ সালে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়ে তাদের পৃষ্ঠপোষক শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ’র নাম প্রকাশ করেছিল। তারা বলেছিল, শেখ আব্দুল্লাহ’র দেয়া টাকা দিয়েই ভারত থেকে বিষ্ফোরক এনে ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট দেশব্যাপী বোমা হামলা করা হয়েছিল।

২০১০ সালে শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় থাকাকালে আবারো মুফতি হান্নান কোর্টে স্বপ্রণোদিত হয়ে স্বীকার করে শেখ হাসিনার সভাস্থলে বোমা পুঁতে রাখার নির্দেশ দিয়েছিল শেখ আব্দুল্লাহ।

কমপক্ষে তিনজন জঙ্গী আদালতে স্বীকারোক্তি দিয়ে বলেছে যে তাদের পরিচালিত জঙ্গী হামলার অর্থ যোগানদাতা এবং পৃষ্ঠপোষক ছিল শেখ আব্দুল্লাহ। সেই শেখ আব্দুল্লাহকেই ২০১৪ সালে শেখ হাসিনা আবারও গোপালগঞ্জ-৩ আসনে তাঁর প্রতিনিধির দায়িত্ব দেন।

এইবার একটু সবাই চিন্তা করে বলেন তো দেখি, জঙ্গিমাতা কে?

Tanzir Ahmed Khan

Keywords

- - -